Bangla sahitya mohakabyar yuger dhara

রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়

  • জন্ম ১৮২৭
  • মৃত্যু ১৮৮৭

রচিত গ্রন্থ গুলি হল:

  • ভেক ও মূষিকের যুদ্ধ-১৮৫৮
  • পদ্মিনী উপাখ্যান-১৮৫৮
  • কর্মদেবী-১৮৬২
  • শূরসুন্দরী-১৮৬৮
  • কুমারসম্ভবের অনুবাদ-১৮৭২
  • কাঞ্চী কাবেরী-১৮৭৯

 

মাইকেল মধুসূদন দত্ত

Michael Madhusudan Dutt, is a most prolific writer of poems and plays. There is probably no writer whose merits are more variously estimated.. The Meghnada Badh is Mr.Dutt’s greatest work . The subject is taken from the Ramayana, the source of inspiration to so many Indian poets… This poem is on the whole the most valuable work in modern Bengali literature.——-Bankimchandra Chattopadhyay

  • জন্ম-১৮২৪
  • মৃত্যু-১৮৭৩
  • বাংলার প্রথম মহাকবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • বাংলায় অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রণেতা মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • বাংলায় প্রথম প্রহসন ধর্মী রচনা করেন মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • বাংলায় প্রথম সার্থক ট্রাজেডি রচয়িতা মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • বাংলায় প্রথম পত্র কবি মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • বাংলায় প্রথম সনেটকার ও আত্মবিলাপ এর স্রষ্টা মাইকেল মধুসূদন দত্ত।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ‘তিলোত্তমাসম্ভব’ রচনা করেন ১৮৬০ খ্রিস্টাব্দে।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ‘মেঘ্নাদবধকাব্য’ রচনা করেন ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দে।
  • ‘ব্রজাঙ্গনা কাব্য’মাইকেল মধুসূদন দত্ত রচনা করেন ১৮৬৪ খ্রিস্টাব্দে।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ১৮৬২ খ্রিস্টাব্দে ‘বীরাঙ্গনা কাব্য’ রচনা করেন।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ‘চতুর্দশপদী কবিতাবলী’ ১৮৬৬ খ্রিস্টাব্দে রচনা করেন পাশ্চাত্য সনেটের আদর্শে।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ‘আত্মবিলাপ’ রচনা করেন ১৮৬২ খ্রিস্টাব্দে।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত ‘বঙ্গভূমির প্রতি’ রচনা করেন ১৮৬২ খ্রিস্টাব্দে।
  • মাইকেল মধুসূদন দত্ত হোমারের ‘ইলিয়াড’অবলম্বনে ‘হেক্টর বধ’ রচনা করেন ১৮৭০ খ্রিস্টাব্দে।

 

 

হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়

  • জন্ম-১৮৩৮
  • মৃত্যু-১৯০৩
  • হেমচন্দ্রের প্রথম কাব্য ‘চিন্তাতরঙ্গিনী’ ১৮৬১ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • ‘বীরবাহু কাব্য’ ১৮৬৪ খ্রিস্টাব্দে হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় রচনা করেন।
  • হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘আশাকানন’ ১৮৭৬ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • ‘ছায়াময়ী কাব্য’ ১৮৮০ খ্রিস্টাব্দে রচিত হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়ের।
  • পৌরাণিক ঘটনা অবলম্বনে রচিত ‘দশমহাবিদ্যায়’ ১৮৮২ খ্রিস্টাব্দে।
  • পাশ্চাত্য কবি লঙফেলোর Psalms of Life অবলম্বনে ‘জীবন সঙ্গীত; শেলীর sensetive plant অবলম্বনে ‘লজ্জাবতী লতা; ‘to a skylark’ অবলম্বনে ‘চাতক পক্ষির প্রতি; কবি টেনিসনের  The Lotus Eaters অবলম্বনে ‘ কমল বিলাসী কবিতা’ অনুবাদ করেন হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায়।
  • কবি হেমচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় ‘ চিত্তবিলাস’ ১৮৯৮ খ্রিস্টাব্দে রচনা করেন।
  • ‘বৃত্রসংহার’ প্রথম খন্ড এবং দ্বিতীয় খন্ড রচনা করেন ১৮৭৫ খ্রিস্টাব্দে এবং ১৮৭৭ খ্রিস্টাব্দের মধ্যে।

 

নবীনচন্দ্র সেন

  • জন্ম ১৮৪৭ খ্রিস্টাব্দে
  • মৃত্যু ১৯০৯ খ্রিস্টাব্দে
  • নবীনচন্দ্র সেনের প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘অবকাশরঞ্জিনী'(১ম খন্ড ১৮৭১, দ্বিতীয় খন্ড ১৮৭৮)
  • নবীনচন্দ্র সেনের ‘পলাশীর যুদ্ধ’ ১৮৭৫ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • নবীনচন্দ্রের ‘ক্লিওপেট্রা’ বিবৃতিমূলক রচনা রচিত হয় ১৮৭৭ খ্রিস্টাব্দে।
  • পাশ্চাত্য কবি স্পটর আদর্শে লেখা ১৮৮০ খ্রিস্টাব্দে ‘রঙ্গমতী’।
  • নবীনচন্দ্র সেনের জীবনী কাব্য রচনা গুলি হল-Gospel of St Matthew অবলম্বনে রচিত ‘খৃষ্ট’ ১৮৯১ খ্রিস্টাব্দে। বুদ্ধদেবের জীবনী অবলম্বনে রচিত ‘অমিতাভ’ ১৮৯৫ খ্রিস্টাব্দে। চৈতন্য জীবনী নিয়ে রচিত ‘অমৃতাভ’ ১৯০৯ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • নবীনচন্দ্র সেনের একটি উপন্যাস হলো ‘ভানুমতী’ ১৯০০ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • নবীনচন্দ্র সেনের 5 খন্ড রচিত আত্মজীবনী ‘আমার জীবন’ ১৯০৭-১৯১৩ খ্রিস্টাব্দে রচিত।
  • ‘রৈবতক’ রচিত হয় ১৮৭৭ খ্রিস্টাব্দে।
  • ‘কুরুক্ষেত্র’ রচিত হয় ১৮৯৩ খ্রিস্টাব্দে।
  • ‘প্রভাস’ রচিত হয় ১৮৯৬ খ্রিস্টাব্দে।

 

কবি দিননাথ ধর:

কংসবিনাশকাব্য-১৮৬১

কবি মহেশ চন্দ্র শর্মা:

নিবাতকবচবধ-১৮৬৯

কবি ভুবনমোহন রায়চৌধুরী:

পাণ্ডবচরিত কাব্য-১৮৭৭

কবি বলদেব পালিত:

কর্ণার্জুন কাব্য-১৮৭৫

কবি বিহারীলাল বন্দ্যোপাধ্যায়:

শক্তিহম্ভব কাব্য-১৮৭০

কবি ব্রজনাথ মিত্র:

কাদম্বরী কাব্য-১৮৬৯

কবি গোপাল চন্দ্র চক্রবর্তী:

ভাগরববিজয় কাব্য-১৮৭৭

হরগোবিন্দ লস্কর চৌধুরী:

দশাননবধ-১৮৯৩

যোগেন্দ্র নাথ বসু:

পৃথ্বীরাজ-১৩২২ বঙ্গাব্দ

শিবাজী-১৩২৫ বঙ্গাব্দ

 

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!